সৌন্দর্যের অভয়াশ্রম খাদিমপুর

গুণীজনরা বলেন, জীবনের বড় ঘটনাগুলো অপ্রত্যাশিতভাবে ঘটে। গুণীজনদের নাম খেয়াল নেই, কিন্তু অনেকদিন বাসায় বসে থেকে যখন ফটোগ্রাফি বাদ দিয়ে নিজেই ছবি হয়ে উঠছি তখনি সুযোগ পেয়ে গেলাম সিলেট ভ্রমণে যাওয়ার। কোথাও ঘুরতে যাওয়ার কথা শুনলে আমার এক্সট্রা দুইটা পাখা গজায়। এটা আমার মায়ের ধারণা। তবে যখন শুনলেন আজ রাতেই …

Read More »

রেমা-কালেঙ্গা অভয়ারণ্য

রেমা-কালেঙ্গা বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্য হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট উপজেলায় অবস্থিত। ঢাকা থেকে ১৩০ কিলোমিটার পূর্বে উত্তর দিকে এবং সিলেট থেকে ৮০ কিলোমিটার দক্ষিণে পশ্চিম দিকে অবস্থিত। অভয়ারণ্যটি রেমা ছনবাড়ী এবং কালেঙ্গা বিটের সমন্বয়ে গঠিত। দক্ষিণ-পশ্চিম দিকে রেমা চা-বাগান, পূর্ব-দক্ষিণ দিকে ভারতীয় ত্রিপুরা রাজ্য এবং পূর্বদিকে ভারত হিল রিজার্ভ ফরেস্টের অংশ। ১৯৮১ সালে …

Read More »

সৌন্দর্যের লীলা ভূমি লালাখাল

এবার পরিকল্পনাটা আমারই। কিন্তু মুকুলভাই, ইব্রাহীম ও চঞ্চল এলাহীর আবদার ভিন্ন। বৃষ্টির এই সময়ে প্রাকৃতিক সৌন্দের্যের লীলাভূমি লালাখালে এক বার না গেলেই নয়। অতঃপর �ঘুরে বেড়াই বাংলাদেশ� এর বন্ধুরা ছুটলাম লালাখালের উদ্দেশ্যে। রাতের বাসে চেপে সিলেট পৌঁছাতে পৌঁছাতে ভোর হয়ে গেল। তারপর শহরের ক্লিন ব্রিজের পাশে হোটেল ফেমাসে গিয়ে উঠি। …

Read More »

দীঘা ডাকছে হাতছানি দিয়ে

অতি সম্প্রতি �হুদহুদ� আঘাত হানার দিন(১২-১০-১৪) আমার সিডিউল ছিল পশ্চিমবঙ্গের পুর্ব মেদিনীপুর জেলার দীঘা সমুদ্রতটে কিছু সময় কাটানো।জরুরী বার্তায় নিষেধাজ্ঞা থাকায় যাত্রা একদিন পিছিয়ে দিলাম।দার্জিলিং যেমন পাহাড় পর্বত, চা-বাগান আর পাহাড়ি দৃশ্য তেমনি পশ্চিমবাংলার ঠিক বিপরীত প্রান্তে দীঘা হচ্ছে সমুদ্র সৈ্কত ও সমুদ্রতটের নৈসর্গিক দৃশ্য। দীঘা হচ্ছে ভারতের অন্যতম স্বাস্থ্যকর …

Read More »

ভূটানের মোহময় প্রাকৃতিক সৌন্দর্য

দক্ষিণ এশিয়া ও সার্কভুক্ত দেশগুলোর প্রাকৃতিক নৈসর্গের অন্যতম পুণ্যভূমি হলো আমাদের পাশ্ববর্তী অঞ্চলের দেশ ভূটান। সুবিশাল হিমালয়ের কল্যাণে উঁচু পর্বতমালা,ঘন বনজঙ্গল,সবুজ ভ্যালি ভূটানের প্রাকৃতিক ঐতিহ্যের অর্ন্তগত। প্রকৃতির অকৃত্রিম মমতা এবং সবুজে ছাওয়া বিস্তৃত অঞ্চল পর্যটকদের কাছে মনোহরী। ভূটানের �ল্যাণ্ড অব দ্য পিসফুল থাণ্ডার ড্রাগনস� শান্তিময় ভ্রমণের স্বর্গরাজ্য। সনাতন সংস্কৃতিই হলো …

Read More »

জোড়াসাঁকো ঠাকুরবাড়ি

বাঙালি তথা সাহিত্যপ্রেমী মানুষের কাছে জোড়াসাঁকোর ঠাকুরবাড়ি একটি তীর্থস্থানের মতো । কলকাতার ৬নং দ্বারকানাথ সড়কের এ গলিটির নাম ছিল মেছো কলোনি । কালের বিবর্তনে এটি এখন বিখ্যাত জোড়াসাঁকো ঠাকুরবাড়ি নামে পরিচিত । এ বাড়িতেই ১৮৬১ সালের ৭ মে এবং বাংলা ১২৬৮সালের ২৫ বৈশাখ জম্ম হয়েছিল বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের । মূল …

Read More »